English | Bangla
কার্যক্রম
পলিথিন নিষিদ্ধে কিছু কিছু কারখানা ও বাজারে সরকারিভাবে বিচ্ছিন্ন কিছু অভিযান পরিচালনা করলেও পাটের ব্যাগ সহজলভ্য করতে কার্যকর উদ্যোগ পরিলক্ষিত হচ্ছে না। এমতাবস্থায় পলিথিন নিয়ন্ত্রণ ও পাটজাত দ্রব্য সহজলভ্য করার দাবীতে পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলন (পবা), ওয়ার্ক ফর এ বেটার বাংলাদেশ (ডাব্লিউবিবি) ট্রাস্ট, আইনের পাঠশালা, ইয়থ সান, ঢাকা যুব ফাউন্ডেশন, পুরান ঢাকা নাগরিক উদ্যোগের যৌথ আয়োজনে আজ ২৫ নভেম্বর ২০১৫, বুধবার, সকাল ১১টায় শাহবাগস্থ চারুকলা অনুষদের সামনে মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়। ...
২০১৪ সালের হিসাবে বাংলাদেশের ৩৩% জনগণ নগরের বাসিন্দা এবং সিটি কর্পোরেশন এলাকায় ৮০ লক্ষ লোক বসবাস করে অথচ পরিকল্পিতভাবে নগর গড়ে উঠছে না। আজ সকাল ১১ টায় পরিবেশ অধিদপ্তর, পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলন (পবা), বাংলাদেশ ইনিস্টিটিউট অব প্ল্যানার্স (বি.আই.পি) এবং ওয়ার্ক ফর এ বেটার বাংলাদেশ ট্রাস্ট এর উদ্যোগে বন বিভাগের হৈমন্তী সম্মেলন কক্ষে “নগর জীবন ও অপচয় রোধে করণীয়” শীর্ষক আলোচনা সভায় বক্তরা এই অভিমত ব্যক্ত করেন। ...
সুন্দরবন এলাকায় বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপন করা অপূরণীয় ক্ষতি হবে। এর ফলে এখানকার গাছপালা, প্রাণীকূল, প্রাকৃতিক ভারসাম্য কোন কিছুই এ ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা পাবে না। তাই সকলের সুন্দরবনকে অন্যত্র বিদ্যূৎ কেন্দ্র স্থাপন করা উচিৎ। আসন্ন বিশ্ব পরিবেশ দিবসকে সামনে রেখে ওয়ার্ক ফর এ বেটার বাংলাদেশ (ডাব্লিউবিবি) ট্রাস্ট গত ২৬ মে, ২০১৫ সকাল ১১ টায় ঢাকার রায়েরবাজারে ডাব্লিউবিবি ট্রাষ্ট এর কৈবর্ত মিলনায়তনে “সুন্দরবন ঃ উন্নয়ন এবং পরিবেশ” শীর্ষক আলোচনা সভায় বক্তারা একথা বলেন। ...
30 এপ্রিল 2015 সকাল ১১টায় আর্ন্তজাতিক শব্দ সচেতনতা দিবস উপলক্ষে পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলন (পবা ) ও ওয়ার্ক ফর এ বেটার বাংলাদেশ (ডাব্লিউবিবি) ট্রাস্ট এর যৌথ উদ্যোগে  ”জনস্বাস্থ্যের উন্নয়নে শব্দদুষণ বিধিমালা বাস্তবায়ন চাই” শীর্ষক অবস্থান কর্মসুচি অনুষ্ঠিত হয়। পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলনের চেয়ারম্যান আবু নাসের খানের সভাপতিত্বে ও ওয়ার্ক ফর এ বেটার বাংলাদেশ ট্রাস্ট’র প্রকল্প কর্মকর্তা জিয়াউর রহমান এর সঞ্চালনায় অবস্থান কর্মসুচিতে বক্তব্য রাখেন ওয়ার্ক ফর এ বেটার বাংলাদেশ ট্রাস্ট এর সিনিয়র প্রকল্প কর্মকর্তা নাজনীন কবীর, সমাজসেবক মনজুর হাসান দিলু, ধানমন্ডি কচিকন্ঠ হাই ...
রাস্তা, বাজার, বাড়ি, প্রতিষ্ঠান ও দোকানের সামনে যত্রতত্র ময়লা-আবর্জনা ফেলে এলাকার পরিবেশ ও রাস্তা নোংরা করছি। ফলে বিভিন্ন রোগের ঝুঁকি বৃদ্ধি পাচ্ছে। বর্ষা মৌসুমে অল্প বৃষ্টিতে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হচ্ছে। এছাড়া এলাকার সৌন্দর্য্যহানিও ঘটছে। পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন একটি এলাকা এলাকাবাসীর মর্যাদা বৃদ্ধি করে। যত্রতত্র ময়লা-আবর্জনা ফেলা বন্ধ হলে এলাকার পরিবেশ সুন্দর থাকবে। সকলে মিলে আমাদের এলাকাকে আবর্জনামুক্ত পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন, স্বাস্থ্যসম্মত ও সুন্দর বসবাস উপযোগী এলাকা হিসাবে গড়ে তুলতে হবে। আজ সকাল ১১টায় রায়ের বাজার সাদেক খান রোড পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন কর্মসূচি পরিচালনাকালে পরিবেশবান্ধব ও স্বাস্থ্যসম্মত শহরের ...